রাজবাড়ী, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর ২০২২

কালুখাারী থানা নিখোঁজ জিডি তদন্তে নেমে

নিখোঁজের ৪দিন পর কালুখালীতে অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার,মামাত ভাই গ্রেপ্তার

প্রকাশ: ১৩ নভেম্বর, ২০২২ ৭:৩৩ : অপরাহ্ণ

প্রিন্ট করুন
॥স্টাফ রিপোটার॥রাজকন্ঠ
রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার বোয়ালিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের আমবাড়িয়া গ্রামের আমিরুল ইসলামের বাড়ির ঘরের পিছনে টয়লেটের সেফটি ট্যাংকের ভিতর হতে মোঃ মোশারফ মোল্লা (৫৫) নামে এক বৃদ্ধের অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করেছে কালুখালী থানা পুলিশ।
শনিবার সকাল ১১ টার দিকে মৃত দেহটি উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার পাংশা (সার্কেল) সুমন কুমার সাহা। নিহত মোশারফ মোল্লা একই গ্রামের মৃত মজিদ মোল্লার ছেলে। এ ঘটনায় নিহত মোশারফ মোল্লার মামাত ভাই রান্নু শাহ (৫০) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।
এ বিষয়ে কালুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ নাজমুল হাসান বলেন, নিহত মোশারফ মোল্লা গত ৮ নভেম্বর রাতে নিখোঁজ হয় এবং পরদিন ৯ নভেম্বর কালুখালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে তার পরিবার। সেই সূত্রে আমরা বিভিন্ন ভাবে খোঁজ খবর নেই ও অনুসন্ধান করতে থাকি। এক পর্যায়ে রান্নু শাহকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি মোশারফ মোল্লাকে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেন।
ঘটনার সূত্রপাতের বিষয়ে ওসি বলেন, রান্নু শাহ ও মোশারফ মোল্লা সম্পর্কে আপন মামাতো ফুফাতো ভাই। মোশারফ মোল্লা রান্নু শাহ এর কাছে এক লক্ষ টাকা ধার দিয়েছিল। পরে সেই টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয় এক পর্যায়ে ঘটনার দিন রাতে রান্নু শাহ মোশারফ মোল্লাকে ফোন করে ডেকে এনে ঘটনা স্থলে গলায় নেট পেঁচিয়ে মোশারফ মোল্লাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। তার পর আমিরুল ইসলামের বাড়ির ঘরের পিছনে টয়লেটের সেফটি ট্যাংকের ভিতরে রেখে চলে যায়।
তিনি আরো বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে হত্যা মামলার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।