রাজবাড়ী, ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১

জনপ্রিয়তা দেখে অপপ্রচারে লিপ্ত একটি কুচক্রী মহল- জমির হোসেন জিকু

প্রকাশ: ৯ অক্টোবর, ২০২১ ৯:০৭ : অপরাহ্ণ

॥ মাসুদ রেজা শিশির ॥রাজকন্ঠ ডট কম


আগামী ডিসেম্বর ২০২১ এর মধ্যে সকল প্রকার নির্বাচন সম্পন্ন করার ঘোষণা দিয়েছেন নির্বাচন কমিশন। এ ঘোষণার পর থেকেই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা তাদের নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা পূনরায় শুরু করে দিয়েছেন। রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার ইউপি নির্বাচনে তফসিল ঘোষণা না হলেও দলের মনোয়ন পত্র ইতি মধ্যে বিক্রি করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগ। এরই মধ্যে দলীয় মনোয়ন পত্র ক্রয় করেছেন উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ৪২ জন প্রার্থী । এরই মধ্যে শুরু করেছে দলীয় হাইকমান্ড বরাবর দৌড়ঝাঁপ, লবিং ও যোগাযোগ।

তবে দলীয় মনোয়নপত্র যারা কিনেছেন এদের মধ্যে উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী যুবলীগ নেতা মোঃ জমির হোসেন জিকুর রয়েছে ব্যাপক গ্রহণ যোগ্যতা সেই সাথে এলাকায় একজন জনপ্রিয় প্রার্থী হিসাবে কর্মকান্ড পরিচালিত করে আসছেন তিনি। জামির হোসেন জিকুর জনপ্রিয়তায় ঈর্শ্বানিত হয়ে একটি কুচক্রী মহল তার বিরুদ্ধে নানা ধরনের অপ্রচার চালাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী যুবলীগের নেতা জমির হোসেন জিকু।

তিনি বলেন আমার ইউনিয়নের সকল প্রান্তের যুব সমাজ আজ আমার সাথে নির্বাচনী মাঠে অংশ নিয়েছেন, সেই এলাকার মরুব্বীরাও শুরু করেছেন আমার নির্বাচনী প্রচারনা,এটা দেখে একটি মহল আমার বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছেন। সেই সাখে আমাকে দলের হাইকান্ডের কাছে বিতকৃত করার অপ্রচেষ্ঠার অংশ হিসাবে একটি অখ্যাত নিউজ পোর্টালে ব্যাপক অর্থের বিনিময়ে আমার বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা বানোয়াট ও ভীত্তিহীন সংবাদ পরিবেশ করিয়েছে আমি ওই সংবাদের ত্বীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান সেই সাথে ওই সাংবাদিকদের আমন্ত্রণ জানায় আমার এলাকায় এসে প্রকৃতি সত্য চিত্র তুলে ধরুন, ঢাকায় বসে এসব করবেন না,সঠিক তথ্য তুলে ধরার আহবান করছি। প্রসঙ্গত হত্যা মামলার আসামীও চেয়ারম্যান প্রার্থী শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ করা হয়।

এ ব্যাপারে জমির হোসেন জিকু বলেন- আমি কোন হত্যার সাথে কোন ভাবেই জড়িত নয়, ওই ঘটনার সময় আমি কয়েক জনের সাথে চায়ের দোকানে বসা ছিলাম ওই সময় এই ষড়যন্ত্র কারীরাই আমার নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে হয়রানীর চেষ্ঠা করেছিল। বিএনপি জামাত জোট সরকারের আমসে আমরা নির্যাতিত হয়েছি আমি মার খেয়েছি আমাদের বাড়ী ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। আমি ও আমার পরিবার জন্মলগ্ন থেকেই বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনিতি করে আসছি। আমার নেতা রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম এমপি তার আর্দশে অনুপ্রাণিত হয়ে রাজতিনিতি করছি।

আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমি দলের নিকট নৌকা প্রত্যাশী দল আশা করি দল আমাকে দলীয় মনোনয়ন (নৌকা) দিবেন আমি মনোনয়ন পেলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের সকল নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে ইনশাআল্লাহ বিজয় হয়ে জনত্রেনী শেখ হাসিনার উন্নয়নকে গ্রামের সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে পৌছে দেওয়ার চেষ্ঠা করব। জামির হোসেন জিকু বলেন আমাকে মাদক ব্যবসায়ী বলা হয়েছে সত্য কথা হল আমি সব সময় মাদকের বিপক্ষে অবস্থান করেছি সেই সাথে এলাকার চিহ্নত মাদক কারবারিদের এই পথ থেকে সরে আসার জন্য বিভিন্ন সময় সভা সমাবেশে বক্তব্য দিয়েছি এ কারনেই আমাকে নিয়ে এরুপ কথা ছড়ানোর চেষ্ঠা করা হয়েছে যা সম্মূন্য মিথ্যা বানোয়াট ও ভীত্তিহীন। আমি এ সংবাদের ত্বীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। জমির হোসেন জিকু বলেন আপনারা সকলেই আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন সব সময় সত্যেই পক্ষে থেকে কাজ করতে পারি। জামির হোসেন জিকু কলিমহর ইউনিয়ন বাসির নিকট দোয়া ও আর্শ্বীবাদ কামনা করেছেন। ওই সংবাদে কলিমহর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল জলিল মন্ডলকে নিয়ে মাদক সংক্রান্ত দোষারোপ করা হয়েছে যা সম্মূন্য মিথ্যা ও বানোয়াট বলে উল্লেখ্য করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল জলিল মন্ডল তিনি উক্ত সংবাদের ত্বীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন আমি শারিরীক ভাবে অসুস্থ সকলেই আমার জন্য দোয়া করবেন।