রাজবাড়ী, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

আশুলিয়া থানা যুবলীগের কান্ডারি হতে চান দেওয়ান রাজু

প্রকাশ: ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১১:৫৯ : অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, আশুলিয়া:

বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ভালোবেসে সাহসিকতার সহিত রাজনীতি করে চলেছেন তিনি। কোনো অন্যায় অবিচারের সঙ্গে আপস করেননি আজবধি। কর্মীদের দুঃখ সুখে সব সময় পাশে থাকায় আশুলিয়ার দিনের পর দিন তার জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। দলের জন্য ত্যাগ আর কঠোর পরিশ্রম করা এই মেধাবী মানুষটি হলেন আশুলিয়া থানা যুবলীগের সভাপতি পদ প্রার্থী দেওয়ান রাজু আহমেদ।

দেওয়ান রাজু আহমেদ আশুলিয়ার ইয়ারপুর ইউনিনের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন। তার বাবা দেওয়ান মোঃ হাবিবুর রহমান ছিলেন একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। তার কাছে বঙ্গবন্ধুর অবদান ও বঙ্গবন্ধুর ভাষণ এর কথা শুনতে শুনতে তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রেমী হয়ে উঠেন।

আওয়ামী পরিবারে জন্ম হওয়ায় পারিবারিক ঐতিহ্যের সূত্র ধরে তিনি ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। ছাত্র জীবনে তিনি ১৯৯২ সালে ইয়ারপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদকের পদ লাভ করেন। ১৯৯৪ সালে সাভার কলেজ ছাত্রলীগের সমাজ কল্যান সম্পাদকের দায়িত্বপালন করেন তিনি। ১৯৯৬ সালে তিনি সাভার উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও ২০০৬ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সদস্য পদে দায়িত্ব পালন করেন। যেই কমিটির মেয়াদ কাল ছিল ২০১১ সাল পর্যন্ত।

ছাত্রলীগ নেতা হওয়ার কারণে সাভার উপজেলা নেতা কর্মীদের সাথে তার একটা সু-সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেই সূত্র ধরে তিনি ২০১৫ইং সালে তিনি আশুলিয়ার ইয়ারপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদ লাভ করেন। যার রয়েছে বঙ্গবন্ধু আদর্শ ও চেতনা তিনি কি আর থেমে থাকতে পারেন? তাই তিনি সময়ের সাহসী নেতাকর্মীদের সাথে কাজ করতে করতে যুবলীগে যোগদান করেন।

যুবলীগে নেতাকর্মীদের সাথে সু-সম্পর্ক থাকায় ও তার জনপ্রিয়তা দেখে এলাকার কিছু কুচক্রি মহল তার বিরুদ্ধ মিথ্যা প্রচারে ব্যস্ত হয়ে পরেছে।

বর্তমান সময়ে আশুলিয়ার আলোচিত উদ্দমী ও জনপ্রিয় নেতা দেওয়ান রাজু আহমেদ বলেন, আমি দল থেকে কিছু পাওয়ার জন্য রাজনীতি করি না। আমি বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শকে ভালোবেসে রাজনীতিতে যোগ দিয়েছে। আমি দলকে যেমন ভালোবাসি তেমনি তৃণমূল নেতা কর্মীরাও আমাকে ভালোবাসে।

দল যদি আমাকে পদ দেয় তাহলে আমি আওয়ামী পরিবারের লোকজন সাথে নিয়ে কাজ করে যাবো। যারা দলকে ভালোবেসে এক সময় কঠোর পরিশ্রম করেছেন, হাইব্রিড নেতাদের ভীরে অভিমান করে সরে আছেন। তাদেরকে ডেকে এনে সম্মান দিব, দলে জায়গা দিব।

এলাকার সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজী ও মাদক ব্যবসা সহ সকল ধরনের অপরাধ নির্মূল করতে নেতাকর্মী সহ এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে কাজ করে যাবো। এছাড়াও সমাজের মৌলিক সমস্যা নিরসনে নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে কাজ করবো।