রাজবাড়ী, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

রাজবাড়ী হেল্পলাইন আরেক ধাপ এগিয়ে

যখন কেউ নেই তখন সন্তানহারা মায়ের পাশে রাজবাড়ী হেল্পলাইন

প্রকাশ: ২৭ আগস্ট, ২০২১ ৪:২৯ : অপরাহ্ণ

।। নিজস্ব প্রতিবেদক।।রাজকন্ঠ ডট কম

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়াতে গোসল করতে গিয়ে পদ্মায় ভেসে নিখোঁজ হওয়া ঘাট শ্রমিক সুলতান সিকদারের (৩২) বৃদ্ধা মা ও অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ভিত্তিক সংগঠন রাজবাড়ী হেল্পলাইন ফাউন্ডেশন। গুড়িগুড়ি বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে হেল্পলাইনের সদস্য ও স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা সুলতানের কুড়ে ঘরে উপস্থিত হোন।

বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) দুপুর একটায় সংগঠনের পক্ষ থেকে সুলতানের মায়ের হাতে নগদ ১০ হাজার টাকা তুলে দেন সংগঠনের অ্যাডমিন প্যানেলের সদস্যরা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি জয়ন্ত কুমার দাস, ধর্ম ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান, দুর্যোগ ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মো. সোলায়মান হোসেন (হিমেল), মো. সালমান বেগ, সাংবাদিক দেবাশীষ বিশ্বাস, হেলাল মাহমুদ, মইনুল হক মৃধা, সরোয়ার মিরাজ প্রমুখ।

নিখোঁজ সুলতানের খালাত ভাই মো. চান্দু মোল্লা বলেন, এই পরিবারটির একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিল সুলতান। সে নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে তার বৃদ্ধা মা, স্ত্রী ও দুই মেয়ে ভীষণ মানবেতর জীবন যাপন করছেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় এতদিনেও কেউ এই অসহায় পরিবারটির খোঁজও নেয়নি। রাজবাড়ী হেল্পলাইন আজ যে সহযোগিতা করলো তা সত্যি প্রশংসার দাবিদার। আমরা হেল্পলাইনের প্রতি কৃতজ্ঞ প্রকাশ করছি।

রাজবাড়ী হেল্পলাইন ফাউন্ডেশনের সভাপতি জয়ন্ত কুমার দাস আজকের পত্রিকাকে বলেন, আমাদের গ্রুপে সাংবাদিক দেবাশীষ পরিবারটির অসহায়ত্ব নিয়ে একটি পোস্ট করলে সেটি হেল্পলাইন ফাউন্ডেশনের নজরে আসলে আমরা অ্যাডমিন প্যানেল থেকে তার পরিবারের খোঁজ-খবর নেয় এবং তার মায়ের হাতে নগদ ১০ হাজার টাকা তুলে দেয়। রাজবাড়ীর অসহায় মানুষের পাশে হেল্পলাইন সব সময় থাকবে।

উল্লেখ্য, গত ১৮ আগস্ট সন্ধ্যায় দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটের শ্রমিক সুলতান দুই নং ঘাটে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয়। স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরির একটি দল অভিযান চালালেও এখন পর্যন্ত তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। নিখোঁজ সুলতান দৌলতদিয়ার সিদ্দিক কাজীর গ্রামের মো. আহম্মুদ সিকদারের ছেলে।