রাজবাড়ী, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

পাংশায় পরোকিয়ার অভিযোগে ইউপি সদস্য মুকুল বিশ্বাসকে গণধোলাই

প্রকাশ: ৫ আগস্ট, ২০২১ ১০:৪৫ : অপরাহ্ণ

মো. শামীম হোসেন:রাজকন্ঠ ডট কম

রাজবাড়ীর পাংশায় পরোকিয়ার অভিযোগে ইউপি সদস্য মো. মুকুল বিশ্বাসকে গণধোলাই করেছে এলাকাবাসী। মো. মুকুল বিশ্বাস হাবাসপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড সদস্য।

বুধবার (৪ আগষ্ট) রাত ১১ টার দিকে উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের চরঝিকরি (ভাঙুনীপাড়া) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে গেলে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হাবাসপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড সদস্য মুকুল বিশ্বাস রাত ১১ টার দিকে দবির নামের এক ব্যক্তির বাড়ির পিছনে লিচু বাগানে একটি মেয়ের সাথে আপত্তিকর অবস্থায় হাতেনাতে ধরে এলাকাবাসী। পরে তাদেরকে ধরে মারধর করে একটি ঘরে আটকে রাখা হয়। পরে এলাকার মান্নান সরদার সহ বেশ কয়েকজন মিলে ইউপি সদস্যকে ৯০ হাজার টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয় এবং ভুক্তভোগী মেয়েকে গ্রাম ছাড়া করে। তবে ৯০ হাজার টাকার বিষয়ে মান্নান সরদার বলেন, মেয়েটি আমার ভাতিজি হয়। আমি কেন টাকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেবো। আপনি যেটা শুনেছেন তাই লেখেন। তাতে আমার কিছু জায় আসে না।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মুকুল বিশ্বাসের বাড়িতে গেলে তাঁকে পাওয়া যায়নি। মুঠোফোনে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি নিউজ প্রকাশ না করার শর্তে টাকার অফার করেন।

ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শাহাবুদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। ঘটনাটি অত্যন্ত নেকারজনক। অবশ্যই এদের শাস্তি হওয়া উচিত।

এ বিষয়ে হাবাসপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল আলীমের সাথে যোগাযোগ করার জন্য একাধিকবার মুটোফোনে কল দিলে তিনি মুঠোফোনটি রিসিভ করেননি।