রাজবাড়ী, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

নানা বাড়ী থেকে আর ফেরা হলো না মুক্তা’র…..

প্রকাশ: ১৪ জুন, ২০২১ ১০:২০ : অপরাহ্ণ

॥ মাসুদ রেজা শিশির ॥রাজকন্ঠ ডট কম


রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে পাংশা উপজেলার মৈশালা বাসষ্ঠ্যান্ড এলাকায় ট্রাকের চাপায় মুক্তা নামের এক শিশু নিহত হয়েছে। নিহত মুক্তা জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের বেতেঙ্গা গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমানের মেয়ে।

(১৪ জুন) সোমবার কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কের মৈশালা বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় ড্রাম ট্রাক (যার নং কুষ্টিয়া-ট ১১-২৮৯৬) এর চাপায় মুক্তা নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় পাংশা হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনার পর পরই ঘাতক চালক ফজলুর রহমান সহ ট্রাকটি আটক করেছে।

স্থানীয়রা জানান মুক্তা ও তার মা পাংশা পৌর সভাধীন মৈশালা বড়গাছী গ্রামে নানা আফছার উদ্দিনের বাড়ীতে বেড়াতে আসেন। সোমবার মুক্তা তার মায়ের সাথে পার্শ্ববর্তী বাবুপাড়া ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামে আত্বীয় মসলেম উদ্দিনের বাড়ীতে যাওয়া উদ্দ্যেশে রওনা দিয়ে পাংশা মৈশালা বাসষ্ঠ্যান্ড পার হওয়ার সময় কুষ্টিয়ার দিক থেকে দ্রুত গতিতে আসা রাজবাড়ী অভিমূখে ড্রাম ট্রাকের চাপায় পড়ে মুক্তা।

এ সময় গুরুত্ব আহত হয়। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পাংশা হাসপাতালে নেওয়া হলে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

সেখানেই চিকিৎসারত অবস্থায় মুক্তার মৃত্যু হয় বলে তার মামা আলম জানিয়েছেন। মুক্তার মারা যাওয়ার খবর পাংশাতে তার নানা আফছার উদ্দিনের বাড়ীতে পৌছালে কান্নায় আকাশ বাতাস ভারী হয়ে ওঠে। নানা বাড়ী থেকে আর বাড়ী ফেরা হলো না তার।