রাজবাড়ী, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

দীর্ঘ দিন পর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে লঞ্চ চলাচল শুরু,কর্মচারীদের মুখে হাসি

প্রকাশ: ২৫ মে, ২০২১ ৫:১২ : অপরাহ্ণ

॥জহুরুল ইসলাম হালিম॥রাজকন্ঠ ডট কম
করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকার পর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে ২৪ মে (সোমবার) ভোর থেকে লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে। এদিন ভোর ৬টা থেকে ঢাকাগামী যাত্রীরা লঞ্চে পার হতে শুরু করেছেন।

এর আগে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনে ৫ এপ্রিল থেকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখে। এই সময়ে নৌপথে শুধুমাত্র ফেরি চলাচল স্বাভাবিক ছিল। বিকল্প নৌযান না থাকায় যাত্রীদের চরম ভোগান্তি মাথায় নিয়ে ঈদে বাড়ি ফিরতে হয়েছে। একইসঙ্গে ঈদের পর ঢাকায় ফিরেছেন এভাবেই। এদিকে লঞ্চ চলাচল শুরু করায় স্বাভাবিক ভাবপ পার হোতে দেখা দেখা গেছে।

দৌলতদিয়া ঘাট বিআইডব্লিউটিএ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সকাল থেকে লঞ্চ চলাচল শুরু করায় যাত্রীরা ফেরির পাশাপাশি লঞ্চে নদী পার হচ্ছেন। ফলে ফেরিতে কমে এসেছে গাদাগাদি করে যাত্রী পারাপারের চাপ। তবে লঞ্চে স্বল্প সংখ্যক যাত্রী পারাপারের নির্দেশনা থাকলেও তার কার্যকারিতা তেমন দেখা যায়নি।

লঞ্চ কর্তৃপক্ষ দাবি করছেন, তারা ঘাটে দাঁড়িয়ে থেকে স্বাস্থ্যবিধি মোতাবেক যাত্রী পার করছেন।

দীর্ঘদিন পরে লঞ্চ চালু হওয়ায় লঞ্চ মালিক-শ্রমিকদের মাঝেও স্বস্তি দেখা দিয়েছে।

বিআইডব্লিউটিএ’র দৌলতদিয়া লঞ্চ ঘাট সূত্রে জানা গেছে, নৌপথে ছোট-বড় মিলিয়ে ১৭টি লঞ্চ চলাচল করছে। ৫ এপ্রিল থেকে কর্তৃপক্ষের নির্দেশে লঞ্চ চলাচল বন্ধ ছিল এ নৌপথে।

সরজিমন বেলা ১১ টায় দৌলতদিয়া লঞ্চঘাটে গিয়ে দেখা যায়, এমভি মোস্তফা প্রায় ৭০ জন যাত্রী নিয়ে দৌলতদিয়া লঞ্চঘাট থেকে পাটুরিয়ার উদ্যেশে ছেড়ে যায়। কুষ্টিয়া থেকে আসা ঢাকাগামী যাত্রী বিল্লাল হোসেন বলেন, লঞ্চ ছাড়ায় এখন স্বস্তি পাচ্ছি। এখন আর গাদাগাদি করে ফেরিতে যেতে হবে না।

বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ফেরিঘাট সূত্রে জানাযায়, লঞ্চ চলাচল শুরু করায় ফেরিতে যাত্রীদের চাপ কমেছে। ফলে যানবাহন পারাপার সহজ হয়েছে। সকাল থেকেই যাত্রীরা লঞ্চে পার হচ্ছে। ফেরিতে যাত্রীর সংখ্যা কিছুটা কমেছে।

বিআইডব্লিউটিএ’র দৌলতদিয়া লঞ্চঘাটের নৌ-পরিবহন পরিদর্শক আফতাব হোসেন বলেন, ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে লঞ্চ চলাচল শুরু করেছে। সোমবার ভোর ৬টায় দৌলতদিয়া ঘাট থেকে লঞ্চ পাটুরিয়ার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার মধ্য দিয়ে লঞ্চ চলাচল শুরু হয়। লঞ্চ চালু হওয়ায় যাত্রীদের মধ্যে স্বস্তি দেখা গেছে।