রাজবাড়ী, ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১

দলিল লেখক সমিতির সভাপতিসহ

কালুখালী সাব-রেজিস্টার অফিসে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান॥ ২ জনের কারাদন্ড, ৬ জনের জেল

প্রকাশ: ৯ নভেম্বর, ২০২০ ৯:১৫ : অপরাহ্ণ

॥স্টাফ রিপোর্টার ॥রাজকন্ঠ ডট কম

রাজবাড়ীর কালুখালী সাব-রেজিস্টার অফিসে সরকারী ফি ব্যতিরেকে অতিরিক্ত ফি আদায়,গ্রাহকদের হয়রানী এবং বৈধ লাইন্সেস না থাকার অভিযোগে দলিল লেখক ও স্ট্যাম্প ভেন্ডারসহ ০৮ জন কে আটক করা হয়েছে।
সোমবার বেলা ১২ টার দিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ্ আল মামুন এ অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় উপজেলা সহকারী কমিশার (ভূমি) শেখ নুরুল আলম, কালুখালী থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান, সমাজসেবা অফিসার মোঃ জিল্লুর রহমান, রতনদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মেহেদী হাচিনা পারভীন নিলুফা সহ অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

অভিযান চলাকালীন সময়ে দলিল লেখক ও স্ট্যাম্প ভেন্ডার এর লাইসেন্স দেখাতে না পারায় তাদের আটক করে কালুখালী থানায় সোপর্দ করে।

আটককৃতরা হলেন কালুখালী সাব-রেজিস্টার অফিস দলিল লেখক সমিতির সভাপতি মোঃ বাহারুল আলম এছাড়াও দলিল লেখক ও ভেন্ডার মোঃ রফিকুল ইসলাম, আব্দুর রহমান, আসাদুজ্জামান ঠান্ডু, জাহিদুল ইসলাম, আবুল কালাম, রফিকুল ইসলাম, মোঃ রুমান।

পরে গ্রাহক হয়রানী বন্ধ করার নিদের্শনা দেওয়ার পরও হয়রানী বন্ধ না করা,দলিল লেখক ও স্ট্যাম্প ভেন্ডার এর বৈধ লাইসেন্স না থাকা এবং দলিল লেখায় সরকারী ফি এর অতিরিক্ত ফি নেওয়ার অপরাধে বিকেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ্ আল মামুন পরিচালিত মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে দলিল লেখক সমিতির সভাপতি মোঃ বাহারুল আলম ও ভেন্ডার রোমানকে ১ মাসের কারাদন্ড প্রদান করা হয়।
আর বাকি ৬ জন জাহিদুল ইসলামকে ৩০ হাজার,মোঃ আসাদুজ্জামান ঠান্ডুকে ২০ হাজার, মোঃ রফিকুল ইসলামকে ৫ হাজার,আব্দুর রহমানকে ৫ হাজার, রফিকুল ইসলামকে ৫ হাজার টাকা ও আবুল কালামকে ৪ হাজার টাকা জরিমান করে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এ ব্যপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ্ আল মামুন জানান, যারা বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পেরেছেন তাদের বাকী ৬জনকে ৬৮ হাজার টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর যাদের কাছে বৈধ কোনো কাগজপত্র নেই তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।