রাজবাড়ী, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

নষ্ট গুড়ের সাথে চিনি ও বিভিন্ন রং মিশিয়ে

পাংশায় ভেজাল গুড়ের কারখানায় নোংরা পরিবেশে তৈরী হচ্ছে গুড়

প্রকাশ: ১১ অক্টোবর, ২০২০ ৯:৪৬ : অপরাহ্ণ

॥ মোঃ শামীম হোসেন ॥রাজকন্ঠ ডট কম


রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার বাহাদুপুর ইউনিয়নের সেনগ্রাম বাজার সংলগ্ন পদ্মা নদীর পাড় এলাকায় একটি কারখানায় চিনি মিশিয়ে তৈরী হচ্ছে ভেজাল গুড়,নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের মধ্য দিয়ে ভেজল গুড় তৈরী করে দীর্ঘদিন ধরে বাজারজাত করে আসছে একটি অসাধু চক্র। কারখানাটি পরিচালনা করে আসছেন সেনগ্রামের মোসলেম সরদারের ছেলে শাহজাহান সরদার।
সরেজমিনে ওই কারখানায় গিয়ে দেখাযায় সম্পুর্ণ অস্বাস্থকর পরিবেশে পুরাতন নষ্ট গুড়ের সাথে চিনি মিশিয়ে বিভিন্ন রং মিশ্রত গুড় তৈরী করে বাজার জাত করে চলছে। এ বিষয়ে ওই কারখানার কর্মচারীদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন- আমরা কমীচারী মাত্র, কারখানার মালিক আমাদেরকে যেভাবে নির্দেশনা দেন আমরা সেই ভাবে কাজ করি। কারখানার মালিক শাজাহান সরদারের অনুপস্থিতিতে তার পিতা মোসলেম সরদার সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে প্রথমে পালিয়ে যায় পরে মুঠোফোনে তার সাথে কথা হলে তিনি সাংবাদিকদের সাথে উত্তেজিত হয়ে বলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে গুড় তৈরি করছি,নষ্ট গুড়ের সাথে চিনি মিশাচ্ছি আপনারা ছবি তুলে নিয়ে যান আমার কিচ্ছু হবে না। এদিকে একই ইউনিয়নের বাহাদুরপুর বাজার সংলগ্ন একটি ভেজাল গুড়ের কারখানায় সম্প্রতি ভোক্তা অধিকারের সহকারী পরিচালক অভিযান চালিয়ে ১লক্ষ টাকা জড়িমানা করেছেন সেই সাথে ওই কারখানার বেশ কিছু গুড় নষ্ঠ করেছে তবে এ সংবাদ লেখাকালীন বাহাদুরপুর বাজার এলাকায় অবস্থিত গুড়ের কারখানা পূনরায় চালু হয়েছে বলে একটি নির্ভরযোগ্য সুত্রে জানাযায়।

Facebook Comments