রাজবাড়ী, ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০

পাংশায় স্বামীকে ঘুমের ঔষুধ খাওয়ায়ে পরকিয়ায় লিপ্ত গৃহবধু

প্রকাশ: ৯ অক্টোবর, ২০২০ ১১:২১ : অপরাহ্ণ

॥মোঃ শামীম হোসেন ॥রাজকন্ঠ ডট কম


রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার বাবুপাড়া ইউনিয়নের দয়রামপুর গ্রামে প্রেমের টানে জিয়া খানের স্ত্রী মুক্তি (৩০) এর ঘরে এসে ধরা খেলেন ঝিনেইদাহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার কবীরপুর গ্রামের আহম্মাদ আলীর ছেলে স্বপন (৩৮)।

এলাকাবাসীর সুত্রে জানা যায় দয়রামপুর গ্রামের জিয়ার স্ত্রী ২ সন্তানের জননীর সাথে কবীরপুর গ্রামের স্বপন ২ সন্তানের জনকের মোবাইলে পরিচয় হওয়ার পর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পূর্ক গড়ে ওঠে । আর প্রেমের টানে সুদুর শৈলকুপা উপজেলার কবীরপুর গ্রাম থেকে রাতে মোটর সাইকেল যোগে তার প্রেমিকা মুক্তির সাথে সাক্ষাৎ করতে আসে। মুক্তি তার প্রেমিক স্বপনের আসার বিষয়টা নিশ্চত হওয়ার পর পরই খাবারের সাথে স্বামী জিয়াকে ঘুমের ঔষধ খাওয়াইয়া অচেতন করে রাতে তার প্রেমিকার সাথে অভিসরে লিপ্ত হন কিন্তু কথায় আছে ৭দিন চোরের ১ দিন গৃস্থের। গত ৭ অক্টোবর বুধবার রাতে মুক্তি তার প্রেমিকার সাথে অভিসরে লিপ্ত হওয়ার অবস্থায় স্বামী জিয়া খানের কাছে হাতে নাতে ধরা পড়েন।

পরে বাড়ীর লোকের শোরচিৎকারে এলাকায় ঐ প্রেমিক যুবককে গনধুলাই দিয়ে খুটির সাথে বেঁধে রাখে। মুক্তির স্বামী জিয়া খান জানান আমার স্ত্রীর প্রতি কোন দাবী নেই তবে মুক্তি এবং স্বপন রাজবাড়ী কোটে বিবাহ করতে গেছেন বলে তিনি সহ এলাকাবাসী জানান। আর এ ঘটনায় অত্র এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে।

Facebook Comments