রাজবাড়ী, ৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০

উপনির্বাচন: ৫ আসনে আ.লীগের মনোনয়নপ্রত‌্যাশী ১৩৮ জন

প্রকাশ: ২৩ আগস্ট, ২০২০ ৯:৪৬ : অপরাহ্ণ

নিউজ ডেস্ক:রাজকন্ঠ ডট কম

পাঁচটি শূন্য আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান ১৩৮ জন। এর মধ‌্যে ঢাকার দুটি আসনেই মনোনয়নপ্রত‌্যাশী ৭৪ জন।

নওগাঁ-৬, সিরাজগঞ্জ-১, পাবনা-৪, ঢাকা-৫ ও ঢাকা-১৮-এই পাঁচ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের ব্যানারে মনোনয়ন ফরম জমা নেওয়া এবং দেওয়ার তারিখ শেষ হয়েছে রোববার (২৩ আগস্ট) বিকেল ৫টায়।

সংসদ সদস্য সাহারা খাতুনের মৃত‌্যুতে ঢাকা-১৮ আসনটি শূন‌্য হয়। এই আসনে দলীয় মনোনয়ন পেতে ফরম সংগ্রহ করেছেন ৫৫ জন।  ঢাকা-১৮ আসনে গত ১২ বছর ধরে সংসদ সদস্য ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন।

এ আসনে নৌকার হাল ধরতে চান যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাদের খান, বিমানবন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. শাহজাহান আলী মন্ডল, প্রয়াত সাহারা খাতুনের ভাগনে আনিসুর রহমানসহ ৫৫ জন।

ঢাকা-৫ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা মারা যাওয়ার পর এই শূন্য হয়। এ আসনে উপনির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি-ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের বর্তমান সভাপতি কামরুল হাসান রিপন, ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মোল্লা সজল, যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী মনিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক হারুন উর রশিদ হারুনর রশীদ মুন্নাসহ ১৯ জন।

এছাড়া আওয়ামী লীগের প্রয়াত বর্ষীয়াণ নেতা মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুর পর শূন্য হওয়া সিরাজগঞ্জ-১ আসন থেকে ৩ জন, শামসুর রহমান শরিফ ডিলুর মৃত্যুতে শূন্য হওয়া পাবনা-৪ আসনে ২৮ জন ও সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলম এর মৃত্যুতে শূন্য হওয়া নওগাঁ-৬ আসনে ৩৩ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলম মারা যাওয়ায় আসনটি শূন্য হয়। আসনে উপনির্বানে মনোনয়ন পেতে ইসরাফিল আলমের স্ত্রী সুলতানা পারিভীন, নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ওমর ফারুক, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহিন মনোয়ারা হক, আত্রাই উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক নাহিদ ইসলাম বিপ্লবসহ মোট ৩৩ জন প্রার্থী দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন।

পাবনা-৪ আসনের (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) সংসদ সদস্য ছিলেন শামসুর রহমান শরিফ ডিলু। তিনি সাত বার এই আসনটিতে জয় পেয়ে সংসদ সদস্য হন।  তার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া এই আসনটিতে মনোনয়ন সংগ্রহ  করেছেন তার ছেলে আওয়ামী লীগ নেতা গালিবুর রহমান শরিফ, সাবেক সংসদ সদস্য পাঞ্চাব আলী বিশ্বাস, আটঘরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা তানভীর ইসলাম, ঈশ্বরদী উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান বিশ্বাসসহ মোট ২৮ জন।

সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া সিরাজগঞ্জ-১ আসনে (কাজিপুর ও সিরাজগঞ্জ সদরের পাঁচটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত) মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে তিনটি। এ আসন থেকে তার বড় ছেলে তানভীর শাকিল জয় মনোনয়ন ফরম কিনেছেন।

Facebook Comments