নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজকন্ঠ ডট কম

রাজবাড়ী জেলার  কালুখালী উপজেলা মাজবাড়ী ইউপির বেতবাড়িয়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আছিরুদ্দিন বিশ্বাসের ছেলে রবিউল বিশ্বাসকে পরিকল্পিত ভাবে বিলের পানিতে চুবিয়ে হত্যার ঘটনার পর হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে সেচ্চার হয়েছে এলাকাবাসী। যার অংশ হিসেবে আজ বুধবার বিকালে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের ব্যানারে রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়েছে।

ওই কর্মসূচীতে বক্তব্য দিয়ে গিয়ে আহাজারী করেছেন, নিহত রবিউলের বৃদ্ধ মা ফুলজান বেগম। তিনি বলেন, “যারা আমার বুক খালি করেছে আমি তাগের বিচার চাই”। কর্মসূচীতে নিহতের ভাই ও হত্যাকান্ডের প্রত্যক্ষদর্শী আক্তার বিশ্বাস, বোন ও ইউপি সদস্য আমেনা বেগম প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

উল্লেখ্য, গত ১৫ আগষ্ট রাতে মুদি ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম বিশ্বাস (৩৫) কে তার বাড়ীর অদুরে একটি বিলের পানির মধ্যে চুবিয়ে হত্যা করে দূর্বৃত্তরা। এ ঘটনার নিহতের স্ত্রী মোছাঃ সাবানা আক্তার বাদী হয়ে ৫ জনকে চিহ্নিত করে কালুখালী থানায় এ হত্যা মামলা দায়ের করে। এ মামলায় পুলিশ এজাহার ভুক্ত রাকিব মন্ডল, সন্দেহজনক আসামী মাঝবাড়ী ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড সদস্য ও মোহনপুর গ্রামের বাসিন্দা ইউসুফ হোসেনের দুই জন ছেলে কে গ্রেপ্তার করেছে। তারা হলো ছাত্র নেতা সোহেল আহম্মেদ ও তার ডিস ক্যাবল ব্যবসায়ী অপর ছেলে রাসেল আহম্মেদ। অপরদিকে, রবিউল হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে একটি চক্র জেলার কালুখালী থানার এসআই ফজলুল হকসহ কয়েকজন পুলিশ সদস্যকে আটকে রেখে মারপিট করে। ওই ঘটনায় কালুখালী থানার এসআই সোহাগ সাহা বাদী হয়ে ২৯০ থেকে ৩০০ জন অজ্ঞাত আসামির বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা দায়ের করেছেন।