রাজবাড়ী, ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সোমবার, ১০ আগস্ট ২০২০

কালুখালীতে করোনা যুদ্ধে জয়ী হয়ে কাজে ফিরলেন ডাঃ মুহাম্মদ আবু জালাল

প্রকাশ: ৬ জুলাই, ২০২০ ৯:৪৪ : অপরাহ্ণ

॥নিজস্ব প্রতিবেদক॥রাজকন্ঠ ডট কম

মহামারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া চিকিৎসক করোনাকে জয় করে সুস্থ্য হয়ে আবার কাজে ফিরেছেন কালুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ও কর্মকর্তা ডাঃ খোন্দকার মুহাম্মদ আবু জালাল।

জীবনকে বাজি রেখে করোনার শুরু থেকে মানুষের কল্যানে কাজ করে যাওয়া স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ও কর্মকর্তা  করোনা যুদ্ধে জয়ী হওয়ায় তাকে উপজেলা হাসপাতালের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করা হয়েছে।

বুধবার সকালে ডাঃ আবু জালালকে রাজবাড়ীর সিভিল সার্জনের পক্ষ থেকেও ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

তিনি ১৫ জুন নমুনা প্রদান করলে গত ২০ জুন আরটি পিসিআর ল্যাব টেষ্টে করোনা শনাক্ত হয়েছিলেন। হাসপাতালের আইসোলশনে থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করার পর ২৫ ও ২৮ জুন প্রাপ্ত ২য় ফলোআপের রিপোর্টে নেগেটিভ আসে।

সোমবার সকালে ডাঃ আবু জালালের সাথে কথা হলে তিনি রাজকন্ঠকে জানান, মহান আল্লাহর কাছে কোটি কোটি শুকরিয়া জানাই। মহান আল্লাহতালার রহমতে আপনাদের সকলের দোয়া ও ভালবাসায় আমাকে মহামারি করোনার হাত থেকে মুক্তি দিয়েছেন।আমি বিশ্বাস করি আগের মত আপনাদের সেবা করতে পারবো।তিনি বলেন আমি করোনা পজেটিভ থাকা অবস্থায় হাসপাতালসহ বিভিন্ন মানুষের খোজ খবর রেখেছি, চেষ্টা করেছি ফোনের মাধ্যমে পরামর্শ দিতে।আমার বিশ্বাস মানুষের শতভাগ ভালবাসা ও দোয়ায় আমি খুব দ্রুত সুস্থ্য হতে পেরেছি।

সেই সাথে আমার এই অসুস্থ্য সময় যারা আমাকে ফোন দিয়ে খোজ খবর রেখেছেন তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। বিশেষ করে রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম এর সুযোগ্য পুত্র জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য আশিক মাহমুদ মিতুল সার্বক্ষনিক আমার খোজ নিয়েছেন। এজন্য তার কাছে আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।আশিক মাহমুদ মিতুল শুধু আমারই না হাসপাতালে যখন যে অসুস্থ্য হয়েছে তখন তার পাশে থেকেছে এবং খোজ রেখেছে।

এসময় তিনি উপজেলার সকল মানুষের কাছে দোয়া কামনা করে বলেন তিনি যেন সুস্থ্য থেকে অবিরাম কালুখালীবাসীর সেবা দিতে পারেন।তিনি বলেন করোনাকে ভয় করা যাবে না করোনাকে করতে হবে জয় আর সেই জন্য সরকারের দেওয়া সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

কালুখালী হাসপাতালটি করোনাকালিন সময় করোনা ডেডিকেটেট হাসপাতাল করায় জেলার সকল উপজেলা থেকে করোনা রোগী আসায় ডাঃ আবু জালাল নিবেদিত ভাবে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।করোনা রোগীর খুব কাজ থেকে সেবা দেওয়া ডাঃ আবু জালাল অল্প সময়ের মধ্যে উপজেলার সকল মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন।স্বাস্থ্য সেবায় করোনা কালিন সময়ে তিনি নিরলস ভাবে মানুষের জন সেবা করে যাচ্ছেন।তিনি মনে করেন মানুষের সেবার মধ্যে যথেষ্ঠ কল্যাণ আছে, মানুষের ভালবাসায় অনেক কিছু পাওয়া যায়। তাই তিনি উপজেলার মানুষের নিবেদিত ভাবে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করছেন।

উল্লেখ্য গত ২০ জুন কালুখালী উপজেলায় ১৪ জন করোনা রোগী পজেটিভ আসে এর মধ্যে ডাঃ আবু জালাল ও আরো ২জন চিকিৎসকসহ হাসপাতালেই কর্মরত ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

Facebook Comments