রাজবাড়ী, ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০

এন্ড্রু কিশোরের শেষ বিদায় দুই সন্তান আসার পর

প্রকাশ: ৬ জুলাই, ২০২০ ১০:৩৮ : অপরাহ্ণ

নিউজ ডেস্ক:রাজকন্ঠ ডট কম

‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে… রইবো না আর বেশিদিন তোদের….’- সত্যি সত্যি চলে গেলেন এরকম অসংখ্য জনপ্রিয় গানের সংগীত শিল্পী এন্ড্রু কিশোর।  সোমবার (৬ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে রাজশাহীতে তার বোন ডা. শিখা বিশ্বাসের ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

এন্ড্রু কিশোরের ছেলে সপ্তক এন্ড্রু এবং মেয়ে সন্ধ্যা এন্ড্রু অস্ট্রেলিয়ায় রয়েছেন জানিয়ে বোনের স্বামী ডা. প্যাট্রিক বিপুল বিশ্বাস জানান, তারা দেশে আসার জন্য চেষ্টা করছে।  এন্ড্রু কিশোরের দুই সন্তান দেশের আসার পর রাজশাহী খ্রিস্টান মিশনারি হাসপাতালে প্রাঙ্গণে তাকে সমাহিত করা হবে।

তিনি আরও বলেন, মরদেহ রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হবে।

১৯৫৫ সালে রাজশহীতে জন্ম নেওয়া এ প্লেব্যাক সম্রাট ১৯৭০ সালে এসএসসি ও ১৯৭৩ সালে এইচএসসি পাস করেন।  ১৯৮২ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে অনার্স-মার্স্টার্স শেষ করেন।

১৯৭৭ সালে ‘মেইল ট্রেন’সিনেমার মধ্য দিয়ে প্লে-ব্যাকে যাত্রা শুরু করেন এন্ড্রু কিশোর।  এরপর ৮ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।

‘জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প’, ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’, ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি’, ‘আমার বুকের মধ্যে খানে’সহ অসংখ্য জনপ্রিয় ও কালজয়ী গান উপহার দিয়েছেন শ্রোতাদের।

তার শরীরে ক্যানসার ধরা পড়ার আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে চিকিৎসার জন্য ১০ লাখ টাকা সহায়তা করেছিলেন। পাশাপাশি ‘গো ফান্ড মি’নামে এক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তহবিল সংগ্রহ করা হয়। সহশিল্পীদের মধ্যেও অনেকে তার পাশে দাঁড়ান। কিন্তু চিকিৎসায় তার সুস্থতা আসেনি।

প্রায় ৯ মাস চিকিৎসা শেষে সিঙ্গাপুর থেকে গত ১১ জুন দেশে ফেরেন সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোর।  ২০ জুন থেকে তিনি রাজশাহীতে ছিলেন।  সবশেষ রোববার (০৫ জুলাই) থেকে এন্ড্রু কিশোরের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে।  তাই তার সুস্থতার জন্য দোয়া চেয়ে স্ত্রী লিপিকা এন্ড্রু ফেসবুকে এক আবেগঘন স্ট্যাটাস দেন।

এরপর তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি ঘটায় সোমবার (০৬ জুলাই) দুপুরে বোনের বাড়িতে রেখেই তাকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেওয়া হয়।  এরপর সন্ধ্যায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

 

Facebook Comments