রাজবাড়ী, ২৯শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০

সবুজের অর্থায়নে শরিসায় গ্রাম পুলিশরা পেল পিপিই ও মাস্ক

প্রকাশ: ২৬ জুন, ২০২০ ৯:০০ : অপরাহ্ণ

মাসুদ রেজা শিশির ॥রাজকন্ঠ ডট কম

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার শরিসা ইউনিয়নে কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে তাদের পাশে থাকার ঘোষনা দিয়েছিলেন শরিসা ইউনিয়নের কৃতি সন্তান মের্সাস সুইটি এন্টার প্রাইজ ঢাকা’র সত্বাধীকারী যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন সবুজ। সেই ঘোষনার আলোকেই শরিসা ইউনিয়নের পিড়ালীপাড়া গ্রামে এক ব্যাক্তি করোনা প্রজেটিভ হওয়া ওই পরিবারের সকলকে পিপিই মাস্ক সাথে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছেন আনোয়ার হোসেন সবুজ। একই সাথে যাতে করে এই করোনা কালীন সময়ে ইউনিয়নের সকল গ্রাম পুলিশ করোনা রোগীদের খোজ খবর নিতে পারেন এ জন্য ইউনিয়নের সকল গ্রাম পুলিশদের ব্যাক্তি উদ্দ্যোগে পিপিই ও মাস্ক প্রদান করেছেন আনোয়ার হোসেন সবুজ। বৃহস্পতি বার শরিসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি মোঃ আজমল আল বাহার বিশ^াস আনুষ্টানিক ভাবে ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ও গ্রাম পুলিশদের মধ্যে পিপিই ও মাস্ক প্রদান করেছেন। আনোয়ার হোসেন সবুজ বলেন আমি মনে করি চেয়ারম্যান,সচিব,ইউপি সদস্যদের পাশাপাশি গ্রাম পুলিশদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে সমাজে তারা প্রাথমিক ভাবে সকল প্রকার সংবাদ সকলের আগে পায় এবং তা উর্দ্ধতন কতৃপক্ষের নিকট পৌছে দেন এই মহামারীর সময়ও তারা নিরলশ ভাবে কাজ করে চলছেন তাই এই সময় তাদের কাজের সহযোগীতার জন্য আমি পিপিই ও মাস্ক প্রদান করেছি। তিনি আরো বলেন আমাদের অবিভাবক রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম এমপি এবং জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য আশিক মাহমুদ মিতুল এই করোনা কালীন সময়ে পাংশা কালুখালী ও বালিয়াকান্দির মানুষের জন্য যা করেছেন তা নজীর বিহীন, প্রতিনিয়ত আশিক মাহমুদ মিতুল জনগনের জনকল্যানকর কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি সকল ক্ষেত্রে অবদান রেখে চলেছেন। সবুজ আরো বলেন শরিষা ইউনিয়নের যে কোন গ্রামে এই মহামারি ভাইরাসে কেউ আক্রান্ত হলে তার পাশে দাড়িয়ে যতটুকু পারি সহযোগীতা করে যাব। আনোয়ার হোসেন সবুজ বহলাডাঙ্গা ছাত্র কল্যান পরিষদের সদস্যদের কাজ করার জন্য তাদেরকেও পর্যাপ্ত পরিমান সার্জিক্যাল মাস্ক প্রদান করেছেন।

Facebook Comments