রাজবাড়ী, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনার প্রথম কার্যকর ওষুধের সন্ধান

প্রকাশ: ১৬ জুন, ২০২০ ৯:০৪ : অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:রাজকন্ঠ ডট কম

করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় প্রথমবারের মতো কার্যকর ওষুধ পাওয়া গেছে। সস্তায় ও সর্বত্র পাওয়া যাওয়া এই ওষুধটি করোনায় আক্রান্ত গুরুতর রোগীদেরও প্রাণ রক্ষা করতে সক্ষম। যুক্তরাজ্যের বিশেষজ্ঞদের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বে পরিচালিত গবেষণায় দেখা গেছে, ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তিদের এক তৃতীয়াংশের জীবন রক্ষা পেয়েছে হাল্কা ডোজের স্টেরয়েড ডেক্সামেথাসোন নামের এই ওষুধটি ব্যবহারে। একে যুগান্তকারী আবিষ্কার বলছেন গবেষকরা।

তারা জানিয়েছেন, হাসপাতলে ভর্তি হওয়া করোনা আক্রান্ত ২০ জন রোগীর মধ্যে ১৯ জনই সুস্থ হয়েছেন। এদের অধিকাংশই স্রেফ ডেক্সামেথাসোন সেবনে সুস্থ হয়েছেন। তবে কারো কারো অক্সিজেন বা ভেন্টিলেশনের প্রয়োজন হয়েছিল। সুস্থ হওয়া এসব রোগী ছিলেন অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। যুক্তরাজ্যে করোনার প্রাদুর্ভাবের পরপর ওষুধটি ব্যবহার করলে প্রায় ৫ হাজার মানুষের জীবন বাঁচানো যেত।

গবেষণা দলের প্রধান অধ্যাপক পিটার হরবি বলেন, ‘এ পর্যন্ত এটাই একমাত্র ওষুধ যেটিকে মৃত্যুর হার কমিয়ে আনতে দেখা গেছে- এবং এটি উল্লেখযোগ্য হারে কমিয়েছে। এটি বিরাট মোড় এনে দিল।’

গবেষণা দলের নেতৃত্বদানকারী সহকারী অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্টিন ল্যান্ডরে জানান, এই ফলে দেখা যাচ্ছে, যদি কোভিড-১৯ সংক্রামিত যেসব রোগী ভেন্টিলেশনে থাকেন বা অক্সিজেন সাপোর্টে থাকেন, তাদের ডেক্সামেথাসোন দেওয়া হলে জীবন বাঁচবে এবং উল্লেখ করার মতো কম খরচে এটি হবে।

তিনি বলেন, ‘এটি একটি স্পষ্ট, স্পষ্ট সুবিধা। চিকিৎসাটি হচ্ছে, ১০ দিন পর্যন্ত ডেক্সামেথাসোন দেওয়া এবং এর জন্য প্রতিরোগীর পেছনে খরচ মাত্র ৫ পাউন্ড।  তাই একটি জীবন বাঁচাতে সব মিলিয়ে খরচ হবে ৩৫ পাউন্ড। এই ওষুধটি বিশ্বের সব জায়গায় পাওয়া যায়।’

Facebook Comments