রাজবাড়ী, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, রোববার, ৪ ডিসেম্বর ২০২২

পাংশায় বিয়ের নামে প্রতারনা ! বিপাকে পড়ে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অভিযোগ দিলেন রিয়া বিশ্বাস

প্রকাশ: ১২ জুন, ২০২০ ৯:১৮ : অপরাহ্ণ

প্রিন্ট করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥রাজকন্ঠ ডট কম

ঘর বাধার এক বুক স্বপ্ন নিয়ে প্রায় ২ বছর ধরে ভালবাসার পর বিয়ের পিড়িতে বসেছিলেন রিয়া বিশ্বাস। স্বপ্ন দেখতেন জীবনে ভাল থাকবে সুখে কাটবে তার বিবাহিত জীবন। কিন্তু তার এই স্বপ্ন অধরাই থেকে গেছে একই সাথে হয়েছেন প্রতারণার শিকার। সাংস্কৃতি মনা রিয়া বিশ্বাস ভাল বেসে বিয়ে করেছিলেন একজন পুলিশ সদস্যকে তিনি এখন আর তাকে স্বীকার করছেন না উপায় না পেয়ে রিয়া তার অধিকার বুঝে পেতে ধর্ণা দিচ্ছেন বিভিন্ন জায়গায় কে কার অধিকার আদায়ের চেষ্ঠা করবে। রিয়া ভাল বেসে বিয়ে করেছিলেন রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের চর কলিমহর গ্রামের আব্দুল ওহাব মন্ডলের ছেলে পুলিশ কনস্টব আব্দুল আওয়ালের সাথে। তবে আওয়াল এখন তাদের বিয়ে অস্বীকার করছে।

এ নিয়ে রিয়া তার শশুড় আব্দুল ওহাবের বাড়ীতে অবস্থান নিয়েছিলে সেখান থেকে কৌশলে তাকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন রিয়া বিশ্বাস। রিয়া বিশ্বাস বাদী হয়ে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার বরারব লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে দেওয়া অভিযোগের রিসিভ কপি আমাদের নিকট রয়েছে সেখানে রিয়া তার সাথে ঘটে যাওয়া ঘটনার বর্ণনা প্রদান করে বলেন আমাকে ১০ লক্ষটাকা কাবিন দিয়ে বিয়ে করে এখন অস্বীকার করছে আওয়াল। একই সাথে আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করে চলছে আওয়ালের বড় ভাই আল আমিন। রিয়া জানান আমি প্রথমে আওয়ালকে বিয়ে করতে চাইনি জোর করে আমাকে বিয়ে করে আমাকে স্ত্র্রীর মর্যাদা না দিয়ে এখন নানা বাহানা করছে। অপর দিকে খোকসাতে বাসা ভাড়া করে আমাকে স্ত্রীর মত ব্যবহার করেছে। এ ঘটনা আওয়ালের বাড়ীর লোকজন ও তার বন্ধুবান্ধব সকলেই জানেন।

রিয়া বিশ্বাস রাজকন্ঠকে জানান আমার স্বামী আওয়াল যক্ষন সবকিছু অশিকার করছে এবং তার পরিবার আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়ায় আমার জীবনের নিরাপত্তার জন্য এবং আওয়ালকে স্বামী হিসেবে পাওয়ার জন্য আমি ১০ জুন রাজবাড়ী পুলিশ সুপাররের কার্যালয়ে গিয়ে একটি অভিযোগ করি এবং অভিযোগপত্র গ্রহণ করে আমাকে একটি রিসিভ কপি হাতে দেন।

এদিকে রিয়া বিশ্বাস একটি কাবিন নামার কপি আমাদের হাতে দিয়েছেন সেখানে ১০ লক্ষ টাকা কাবিনে তাদের বিয়ের প্রমান রয়েছে, একই সাথে কিছু অডিও রের্কট ও তাদের বিয়ে ও বিভিন্ন স্থানে অবস্থানের ছবিও রয়েছে আমাদের কাছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ কনসটবল আব্দুল আওয়ালের সাথে কথা হলে তিনি বলেন রিয়ার সাথে আমার সর্ম্পক ছিল। তবে তার সাথে আমার বিয়ে হয়নি যে কাবিন নামা দেখানো হচ্ছে তা সঠিক নয়।