রাজবাড়ী, ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২

পাংশায় সামাজিক দুরত্ব বজায় না রাখায় ভ্র্যমমান আদালতে ২০৩টি মামলা ॥ ৪ লক্ষ ৬২ হাজার টাকা জড়িমানা

প্রকাশ: ১৯ মে, ২০২০ ৭:৩৭ : অপরাহ্ণ

প্রিন্ট করুন

মাসুদ রেজা শিশির ॥ রাজবাড়ী কন্ঠ ডট কম

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম ও সহকারী কমিশনার ভ’মি নুজহাত তাসনীম আওন মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রামনের শুরু থেকেই মাঠ পর্যায় কাজ করে চলছেন নিরলশ ভাবে। শুরু থেকে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে প্রচার প্রচারনা চালিয়ে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে চেষ্ঠা করে যান উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম।
সরকার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কোচিং সেন্টার বন্ধের ঘোষনা দেওয়ার পর প্রথম ১৯ মার্চ কোচিং সেন্টার চালানোর অভিযোগে এক শিক্ষকের ৫ হাজার টাকা জড়িমানা করার মধ্য দিয়ে করোনা পরিস্থিতিতে প্রথম ভ্র্যমমান আদালত পরিচালা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্টে মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম। এপ্রিল মাসে ১৮৫ টি মামলায় ৪লক্ষ ২৩ হাজার ৭শত টাকা এবং চলতি মাসে ১৭ মে পর্যন্ত ১৬টি মামলায় ২৮ হাজার ৪৫০ টাকা ভ্রমম্যান আদালতের মাধ্যমে জড়িমানা করে তা রাজস্বখাতে প্রদান করা হয়েছে। মোট মামলার সংখ্যা ২০৩ টি আর মোট জড়িমানার টাকার অংক ৪ লক্ষ ৬২ হাজার টাকা ১শত ৫০ টাকা। এতো বিপুল পরিমান টাকা জড়িমানা দিলেও পাংশার মানুষ সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখছেন না।