রাজবাড়ী, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও করোনার ভেষজ ওষুধ বিক্রি করছে মাদাগাস্কার

প্রকাশ: ৮ মে, ২০২০ ৮:৫৬ : অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:রাজকন্ঠ ডট কম

 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় ‘কার্যকর’ দাবি করা ভেষজ ওষুধ বিক্রি করছে মাদাগাস্কার। ইতোমধ্যে আফ্রিকার কয়েকটি দেশ থেকে এই ওষুধ সরবরাহের আদেশ পেয়েছে দেশটি।

গত মাসে প্রেসিডেন্ট আন্দ্রে রাজোলিনা এক সংবাদ সম্মেলনে এই ওষুধের মোড়ক উন্মোচন করেন। এই ওষুধ ব্যবহার করে দুই ব্যক্তি সুস্থ হয়েছেন বলে দাবি করেন তিনি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, শুক্রবার তাঞ্জানিয়া থেকে একটি প্রতিনিধি দল তাদের আদেশ দেওয়া ওষুধ সংগ্রহের জন্য মাদাগাস্কার গিয়েছেন।

ম্যালেরিয়ার চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধি গুণ সম্পন্ন আর্টেমিশিয়া গাছ দিয়ে এই ওষুধটি বানানো হয়েছে। এ পর্যন্ত এর আন্তর্জাতিকভাবে কোনো বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা হয়নি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এর কার্যকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া যাচাইয়ের জন্য গবেষণাগারে পরীক্ষার আহ্বান জানিয়েছে। তবে সেই আহ্বান কানে না তুলেই মাদাগাস্কার সরকারি সংস্থা মালাগাসি ইনিস্টিটিউ অব অ্যাপলায়েড রিসার্চ উদ্ভাবিত ওষুধটি ‘কোভিড-১৯’ অর্গানিক নাম দিয়ে বাজারজাত করছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, ইতোমধ্যে তাঞ্জানিয়া, ইকুয়াটোরিয়াল গিনি, মধ্য আফ্রিকা প্রজাতন্ত্র, কঙ্গো প্রজাতন্ত্র, ডিআর কঙ্গো, লাইবেরিয়া ও গিনি বিসাউতে বিনামূল্যে হাজার হাজার ডোজ এই ওষুধ সরবরাহ করা হয়েছে।

বুধবার মাদাগাস্কারের প্রেসিডেন্ট দপ্তরের এক আইনি উপদেষ্টা জানিয়েছিলেন, তারা এখন এই ওষুধ বিক্রি শুরু করবেন। প্রতি বোতল ওষুধের দাম পড়বে ৪০ মার্কিন সেন্ট।

প্রেসিডেন্ট দপ্তরের লিগ্যাল স্টাডিজের পরিচালক ম্যারি মিশেল সাহোন্দ্রারিমালাহ বলেছেন, ‘এই ওষুধ বাজারে সরবরাহ করা হবে। ইতোমধ্যে মাদাগাস্কার বিভিন্ন দেশের শীর্ষ কর্তৃপক্ষসহ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে সরবরাহ আদেশ পেয়েছে।