রাজবাড়ী, ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর ২০২২

আগামী ৩ মাস আমার ইউনিয়নে খাদ্য সংকট থাকবে না : ইউপি চেয়ারম্যান বাহার

প্রকাশ: ২৭ এপ্রিল, ২০২০ ৭:২৩ : অপরাহ্ণ

প্রিন্ট করুন

মাসুদ রেজা শিশির ॥ দেশের বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা অসহায়, দুঃস্থ ও হত দরিদ্ররা যাতে অভুক্ত না থাকে তার বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। আমার ইউনিয়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে এ পর্যন্ত ১৩১০টি পরিবারের মধ্যে বিভিন্ন সময় ত্রাণের চাল বিতরণ করা হয়েছে। আরো তালিকা আমাদের নিকট রয়েছে যা পর্যায়ক্রমে বিতরণ করা হবে।

করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম ব্যক্তিগত উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন। এছাড়াও তার সুযোগ্য পুত্র রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আশিক মাহমুদ মিতুল হাকিম কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী ও শিশুদের জন্য আদর্শ বাড়তি খাবার কর্মসূচির মাধ্যমে শিশু খাদ্য বিতরণ করেছেন। তিনি করোনা ভাইরাসের শুরু থেকেই আমাদের পাশে রয়েছেন। এ পরিস্থিতি চলমান থাকলেও আমাদের কোন খাদ্যাভাব থাকবে না।

আমার ইউনিয়নের কোন মানুষই না খেয়ে থাকবে না। আগামী ৩ মাস আমার ইউনিয়নে কোন খাদ্য সংকট থাকবে না। আমরা সবসময়ই সাধারণ মানুষের পাশে আছি, বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায়ও মানুষের পাশে থাকবো। যারা বলে বেড়ায় আমরা ত্রাণ পায়নি তারা জাতির শত্রু।

সোমবার দুপুরে রাজবাড়ির পাংশা উপজেলার সরিষা ইউনিয়ন পরিষদের সরকারি ত্রাণ বিতরণ কালে এসব কথা বলেন সরিষা ইউপি চেয়ারম্যান আজমল-আল বাহার।

এসময় ইউনিয়নের ৪৫০টি পরিবারের মাঝে স্ব স্ব ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যগণের উপস্থিতিতে ১০ কেজি চাল, নগদ ৫০ টাকা ও ১ প্যাকেট বিস্কুট বিতরণ করা হয়। এ পর্যন্ত সরিষা ইউনিয়নের ১৩১০ টি পরিবারের মাঝে এ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। তালিকানুযায়ী পর্যায়ক্রমে সকল হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে এ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হবে বলে জানা গেছে।

ত্রাণ বিতরণকালে তদারকী কর্মকর্তা শ্যাম সুন্দর, উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার ও ত্রাণ বিতরণ তদারকী কমিটির সদস্য, ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মোঃ ফরহাদ হোসেন, ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যগণ ও স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।