রাজবাড়ী, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২

বালিয়াকান্দীতে ওয়েলকামপার্টির অত্যাচারে অতিষ্ঠ কৃষক পরিবার

প্রকাশ: ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ৯:৫৫ : পূর্বাহ্ণ

প্রিন্ট করুন

বালিয়াকান্দী প্রতিনিধি

রাজবাড়ির বালিয়াকান্দীতে ওয়েলকাম পার্টির (মোবাইল প্রতারনাকারী চক্র) সদস্যকে পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে দেওয়ার সন্দেহে এক কৃষক পরিবারের উপর একের পর এক হামলা, ভাংচুর, মামলা দিয়ে ফাঁসানোর গুরুতর অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের চরঘিকমলা গ্রামের মোহন মন্ডলের ছেলে কৃষক দুলাল মন্ডল অভিযোগ করে বলেন, সম্প্রতি বাড়ীর পাশের বাহের মন্ডলের ছেলে ওয়েলকামপার্টির সদস্য ফারুক মন্ডলকে ১শত পিছ ইয়াবা, শতাধিক মোবাইলের সীম, ৮টি মোবাইলসহ বালিয়াকান্দী থানা পুলিশ গ্রেফতার করে।

এছাড়াও তার মামা রবিউলকেও পুলিশ আটক করে। তারপর থেকেই আমার ও পরিবারকে ফাঁসানোর জন্য উঠেপড়ে লাগে ওয়েলকামপার্টির সদস্যরা। তারা আমার উপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।

এ নিয়ে বালিয়াকান্দি থানায় মামলা দায়ের করা হয়। মামলাটি স্থানীয় ভাবে আপোষ-মিমাংসা করে দেয়। তারপরও আমার বাড়ীতে রাতের অন্ধকারে গাঁজা ও ইয়াবা রেখে আসে। পরদিন দেখে থানায় গাঁজা ও ইয়াবা প্রদান করা হয়।

গত শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে আমার স্ত্রী তুপ্তি বেগম বাড়ীতে টিভি দেখছিল। এসময় মুখোশ পড়ে ফারুক, রাসেলসহ ৬জন ঘরে প্রবেশ করে মারধোর করাসহ ঘরে থাকা ৪৭ হাজার টাকা নিয়ে যায়।

এব্যাপারে তৃপ্তি বেগম বাদী হয়ে রবিবার বালিয়াকান্দি থানায় অভিযোগ দায়ের করে। মঙ্গলবার থানার এ,এস,আই জেসমিন তদন্তে গেলে সে ফিরে আসার পর পরই আমার বাড়ীতে রবিউল, ফারুক, রাসেল, নাসির, রানা, বুলুসহ তাদের লোকজন হামলা চালিয়ে বসতবাড়ীর ঘর কুপিয়ে ক্ষতি সাধন করে।

তিনি আরও বলেন, আমার বাড়ীতে হামলা চালিয়ে নিজেদের ঘর নিজেরা কুপিয়ে আমার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করাসহ শুনেছি ঝিনাইদহে আমার নামে নারী পাচার মামলা দায়ের করেছে।

তিনি বলেন, চরঘিকমলা ও বাকসাডাঙ্গী গ্রামে চিহিৃত ওয়েলকামপার্টির সদস্য রয়েছে শতাধিক। এলাকার লোকজন কেউ প্রতিবাদ করলেই তাদের উপর নেমে আসে আমার মতো নির্যাতন। এ ভয়ে তাদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে সাহস পায় না।

ফারুক মন্ডল ও রবিউল মন্ডলের পরিবারের সদস্যরা বলেন, ওরাতো আমাদের ঘর কুপিয়েছে। আমরা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।