রাজবাড়ী, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

ফারুক হোসেনকে পাথালিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে দেখতে চায় তৃণমূল

প্রকাশ: ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ৩:০৭ : অপরাহ্ণ

হাসান ভূঁইয়া, নিজস্ব প্রতিবেদক:

পাথালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অধিবেশন খুব শিগ্রই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ কাউন্সিল অধিবেশনে বর্তমান সময়ে আলোচিত উদ্দমী, অন্যায়ের প্রতিবাদী কন্ঠ, তৃণমূল নেতাকর্মীদের কল্যাণে নিবেদীত প্রাণ ও এলাকাবাসীর প্রাণপ্রিয় নেতা মোহাম্মদ ফারুক হোসেনকে পাথালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে দেখতে চান তৃণমূল নেতাকর্মীরা।

বাংলাদেশকে যোগ্য নেতৃত্ব দিয়ে এগিয়ে নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভ’য়সী প্রশাংসা করে তৃণমূল নেতাকর্মীরা বলেন, এই অগ্রযাত্রার একজন অন্যতম কর্মী মোহাম্মদ ফারুক হোসেন ভাই। পাথালিয়া আওয়ামী লীগকে আরো শক্তিশালি করার লক্ষে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শ বুকে ধারন করে দলের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে মোহাম্মদ ফারুক ভাই। প্রকৃত মুজিব প্রেম বুকে ধারণ করা মোহাম্মদ ফারুক হোসেন ভাইকে পাথালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা উচিত বলেও মনে করেন তারা।

শ্রমিকবান্ধব এই নেতা পারিবারিক ঐতিহ্যের স‚ত্র ধরে রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। তিনি ১৯৯২ সালে পাথালিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক হিসেবে যোগ দিয়ে রাজনীতি শুরু করেন তিনি । বিগত সময়ে তিনি আশুলিয়া থানা যুবলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। বর্তমানে তিনি আশুলিয়া মাৎস্য ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি সাভার উষা গার্ডেন ফ্লাট মালিক সমতিরি তিন বারের সভাপতি ছিলেন।

এদিকে গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি পাথালিয়া ইউনিয়ন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন, যার ফলে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান পারভেজ দেওয়ান অন্য প্রতিদ্ব›দ্বীর থেকে ২৩ হাজার ৫শত ভোট বেশি পান।

পাথালিয়া ইউনিয়নবাসি মুক্তিযোদ্ধা ইউছুফ বলেন, জাতির পিতার আদর্শের দলের একজন কর্মী হয়ে কাজ করছেন মোহাম্মদ ফারুক হোসেন। বিএনপি-জামায়াতের ভয়ে যেখানে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা কথা বলতে সাহস পেতো না, সেখানে রাজপথে থেকে বিএনপি-জামায়াতের গণবিরোধী বিভিন্ন কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করতো সে। তাই আমি মনে করি তাকে পাথালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক করা উচিত।

পাথালিয়া ইউনিয়নবাসি ব্যবসায়ী সুমন চন্দ্রবাস বলেন, পরিচ্ছন্ন রাজনীতির প্রতিচ্ছবি উদীয়মান এই নেতাকে পাথালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বভার অর্পন করলে এলাকাবাসীর পক্ষে থাকবে। শুধু তাই নয়, পাথালিয়া ইউনিয়নবাসির মধ্যে ৮০% মানুষের প্রাণের দাবিও তাই।

মোহাম্মদ ফারুক হোসেন বেলেন, আমি দল থেকে কিছু পাওয়ার আশায় রাজনীতি করি না। আমি বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শকে ভালোবেসে রাজনীতিতে যোগ দিয়েছে। আমি দলকে যেমন ভালোবাসি তেমনি তৃণমূল নেতা কর্মীরাও আমাকে ভালোবাসে। তাই নেতা কর্মী ও জনগনের আশা পূরণে যদি দল আমাকে পদ দেয়, তাহলে পাথালিয়া ইউনিয়ন বাসি আমাকে হাসি মুখে গ্রহন করবে বলে আমি আশাবাদী।

এ সময় তিনি আরো বলেন, আমাকে পাথালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বভার প্রদান করলে, আমি সততার সাথে দায়িত্ব পালন করবো। যেখানেই স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি বাধা হয়ে দাড়াবে, সেখান থেকেই প্রতিরোধ ও প্রতিবাদ শুরু করবো।