রাজবাড়ী, ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

ধর্ষণ ঠেকাতে পর্নো সাইট বন্ধে মোদিকে চিঠি

প্রকাশ: ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১১:৫১ : পূর্বাহ্ণ

ভারতে নারীদের ওপর যৌন নির্যাতন বেড়েই চলেছে। কোনোভাবেই যেন এক্ষেত্রে নারীদের সুরক্ষা দিতে পারছে না নরেন্দ্র মোদি সরকার। এই অবস্থায় নারীর ওপর যৌন নির্যাতনের জন্য পর্নোগ্রাফিকে দায়ী করে এসব সাইট বন্ধে মোদিকে চিঠি দিয়েছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী।

বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার মনে করেন, নারীদের ওপর অহরহ যৌন নির্যাতনের যেসব ঘটনা ঘটছে তার জন্য দায়ী পর্নো সাইট।

মোদিকে দেয়া ওই চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, ‘বিভিন্ন রাজ্যে নারীদের ওপর অপরাধের ঘটনা ক্রমান্বয়ে বেড়ে চলেছে। যে কারণে আপনার কাছে আমার বিনীত নিবেদন, পর্নো সাইটগুলোকে সম্পূর্ণ বন্ধ করে দিন।’ সহজে যেসব পর্নো সাইটগুলো অ্যাকসেস করা যায়, মূলত সেগুলোর ওপরেই নিষেধাজ্ঞা কথা বলছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী।

সম্প্রতি বিহারে ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় বিধানসভা বিরোধীদের তোপের মুখে পড়েন মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। তিনি এ ধরনের মামলার তদন্ত দ্রুত শেষ করতে পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রীর এই নির্দেশে বলা হয়েছে, কোথাও ধর্ষণের ঘটনা ঘটলে, অভিযুক্তকে দ্রুত গ্রেফতার করুন। তদন্ত দ্রুত শেষ করে, চার্জশিট ফাইল করুন।

সর্বশেষ সরকারি হিসাব অনুযায়ী, ভারতে ২০১৭ সালে ৩৩ হাজারের বেশি নারী ও শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে। ধর্ষণের শিকার ভুক্তভোগীদের মধ্যে ১০ হাজারের বেশি শিশু। সর্বশেষ চলতি মাসে শুরুতে হায়দরাবাদে এক পশু চিকিৎসককে ধর্ষণের পর তার মরদেহ পুড়িয়ে ফেলানো হয়। ওই ঘটনার প্রতিবাদে গোটা ভারত জুড়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। আন্দোলনের মাঝেই রাজস্থানে এক স্কুলছাত্রীর অর্ধনগ্ন মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

Facebook Comments