রাজবাড়ী, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাংলাদেশ খেলবে ২৪ ওভারই, করতে হবে ২১০

প্রকাশ: ১৮ মে, ২০১৯ ১:২৫ : পূর্বাহ্ণ

ডাকওয়ার্থ লুইস মেথড কতটা নির্মম হতে পারে তার জ্বলন্ত উদাহরণ হয়ে থাকলো আজকের ম্যাচটি। শুধু উইন্ডিজই নয়, প্রথম ইনিংস শেষে বাংলাদেশের মূল প্রতিপক্ষ বৃষ্টিই। আগে ব্যাট করতে নেমে উইন্ডিজ খেললো ২৪ ওভার। করল ১৫২ রান। বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়া সময় কাভার করার জন্য বাংলাদেশের ওভারও কাটা হল। কিন্তু ডিএল মেথডে টাইগারদের টার্গেট দাঁড়ালো ২১০।
ডাবলিনে দফায় দফায় বৃষ্টি শেষে আকাশ পরিস্কার হলে স্থানীয় সময় সাড়ে ৫টা এবং বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১০টায় শুরু হয় ম্যাচ। বৃষ্টির কারণে প্রতি ইনিংসের ২৬ ওভার গেছে বৃষ্টির পেটে। ২১.৫ ওভার ব্যাট করে বিনা উইকেটে ১৩১ রান সংগ্রহ করা উইন্ডিজ আবারো নামে ব্যাটিংয়ে। তাতে দলটির নতুন সংগ্রহ দাঁড়ায় ১ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান।

কার্টেল ওভারে নেমে আসা ম্যাচে নতুন নিয়মে ৪ জন বোলার সর্বোচ্চ ৫ ওভার এবং ১ জন বোলার সর্বোচ্চ ৪ ওভার বল করতে পারবেন বলে জানানো হয়।

বাংলাদেশের পক্ষে একমাত্র উইকেটটি শিকার করেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তার করা ইনিংসের ২৩তম ওভারে ক্যারিবীয়রা সংগ্রহ করে মাত্র ২ রান। দুর্দান্ত সেই ওভারে মিরাজের বলে দারুণ ক্যাচ ধরে ৭৪ রান করা শাই হোপকে সাজঘরে ফেরান সাব্বির রহমান। সুনীল আমব্রিস ৬৯ ও ডোয়াইন ব্রাভো ৩ রান করে অপরাজিত থাকেন।

এদিকে ম্যাচে টস জিতে আগে বল করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। নিজেদের খেলা সবশেষ ম্যাচের একাদশ থেকে চার পরিবর্তন নিয়ে ফাইনালে নেমেছে টাইগাররা। সাইড স্ট্রেনের জন্য দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য সাকিব আল হাসানকে ছাড়াই মাঠে নামতে হয় বাংলাদেশকে।

শিরোপা জয়ের মিশনে বাংলাদেশ একাদশে ফিরেছেন সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, মেহেদী হাসান মিরাজ ও মোস্তাফিজুর রহমান। আর একাদশের বাইরে চলে গেছেন লিটন দাস, আবু জায়েদ রাহী ও রুবেল হোসেন।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে পূর্ণ সদস্য কোনো দলের বিপক্ষে এটি সপ্তম ফাইনাল। এর আগের ৬টি ফাইনালের একটি ম্যাচেও জিততে পারেনি টাইগাররা। ডাবলিনে বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি পরিত্যক্ত হলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দল হিসেবে বাংলাদেশই পেত চ্যাম্পিয়নের মর্যাদা।

Facebook Comments